Home আন্তর্জাতিক মহান শহীদ দিবস ও আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস উদযাপনঃ দূতাবাস

মহান শহীদ দিবস ও আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস উদযাপনঃ দূতাবাস

বাহরাইনের বাংলাদেশ দূতাবাসে যথাযোগ্য মর্যাদা ও ভাবগাম্ভীর্যের মধ্য দিয়ে ২১ ফেব্রুয়ারি ২০২১, রোববার ৫২ র ভাষা আন্দোলনের বীর শহীদদের স্মৃতির প্রতি গভীর শ্রদ্ধাঞ্জলি অর্পণের মধ্য দিয়ে মহান শহীদ দিবস ও আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস যথাযোগ্য মর্যাদার সঙ্গে পালন করা হয়।
অনুষ্ঠানের প্রথম পর্বে জাতীয় পতাকা উত্তোলন ও অর্ধনমিতকরণের মধ্য দিয়ে দিবসটির কার্যক্রম শুরু হয়। শুরুতে পবিত্র কোরআনে কারীম থেকে তেলাওয়াত অতঃপর ভাষা শহীদদের স্মরণে ১ মিনিট নীরবতা পালন করা হয়। মান্যবর রাষ্ট্রদূত ডঃ মুহাম্মদ নজরুল ইসলাম-এর সভাপতিত্বে মহান শহীদ দিবস ও আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস উপলক্ষে প্রেরিত মহামান্য রাষ্ট্রপতি, মাননীয় প্রধানমন্ত্রী, মাননীয় পররাষ্ট্রমন্ত্রী ও পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রীর বাণী পাঠ করা হয়। অতঃপর মান্যবর রাষ্ট্রদূত তার শুভেচ্ছা বক্তব্য রাখেন। মান্যবর রাষ্ট্রদূত তার বক্তব্যে ভাষা শহীদদের প্রতি গভীর শ্রদ্ধাঞ্জলি জ্ঞাপন করে বলেন, ভাষার জন্য জীবন দেওয়ার মাধ্যমে বাঙালি জাতি পৃথিবীর ইতিহাসে একটি নজিরবিহীন ঘটনার জন্ম দিয়েছে। ১৯৯৯ সালে মাতৃভাষার জন্য বাঙালি জাতির আত্মত্যাগের স্বীকৃতি হিসেবে ইউনেসকো ২১ ফেব্রুয়ারিকে আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস হিসেবে ঘোষণা করে, যা পরবর্তী সময়ে জাতিসংঘ সাধারণ পরিষদ চূড়ান্তভাবে অনুমোদন করে। সারা বিশ্বে এখন ২১ ফেব্রুয়ারি আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস হিসেবে পালিত হচ্ছে। এদিন সব ভাষার প্রতি সম্মান জানানো হচ্ছে।

কমিউনিটির বিশিষ্ট নেতৃবৃন্দ ও দূতাবাসের কর্মকর্তা-কর্মচারীবৃন্দ উপস্থিতিতে বৈশ্বিক মহামারী করোনা পরিস্থিতি বিবেচনায় স্বাস্থ্যবিধি মেনে সীমিত পরিসরে উক্ত অনুষ্ঠান আয়োজন করা হয়।

দিবসটি উপলক্ষে ও মুজিব শতবর্ষ উদযাপন এর অংশ হিসেবে দূতাবাস, বাহরাইন অথরিটি ফর কালচার ও অ্যান্টিকুইটস এবং জাতিসংঘের বাহরাইন অফিস এর সমন্বয়ে বাহরাইনে আন্তঃস্কুল চিত্রাংকন প্রতিযোগিতার আয়োজন করা হয়। দুইটি গ্রুপে আয়োজিত প্রতিযোগিতার প্রথম গ্রুপের (৭ম, ৮ম ও ৯ম শ্রেণি) প্রতিপাদ্য ছিল: ‘ল্যাংগুয়েজ ফর ইউনিটি’ এবং দ্বিতীয় গ্রুপের (১০ম, ১১শ, ১২শ) প্রতিপাদ্য ছিল: ‘ল্যাংগুয়েজ ফর ডাইভারসিটি’।

সবশেষে শহীদদের আত্মার মাগফিরাত কামনা এবং বাংলাদেশে অব্যাহত উন্নয়ন এবং সমৃদ্ধি কামনা করে বিশেষ মোনাজাত করা হয়।

শহীদদের আত্মার শান্তি কামনায় দোয়া

অনুষ্ঠানের দ্বিতীয় পর্বে মহান শহীদ দিবস ও আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস উপলক্ষে বিশেষ প্রামাণ্যচিত্র প্রদর্শন করা হয় অতঃপর উপস্থিত সুধিমন্ডলী আপ্যায়নের মধ্য দিয়ে অনুষ্ঠান সমাপ্ত হয়।

পতাকা উত্তলন

তথ্যচিত্র বাংলাদেশ দূতাবাস – বাহরাইন।

 

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here